শঙ্কা কাটিয়ে আর্জেন্টিনা দলে যোগ দিয়েছেন মার্টিনেজ-রোমেরো ।

কঠোর কোয়ারেন্টাইন নিয়মের কারণে ফুটবলারদের ছাড়তে চাচ্ছিলো না ইউরোপিয়ান ক্লাবগু’লো। তবে সে সব শঙ্কা দূর করে আর্জেন্টিনা দলের যোগ দিয়েছেন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মা’র্টিনেজ, ক্রিস্টিয়ানো রোমেরোরা।

কিছুদিন আগে এক বিবৃতিতে প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, বৃটেনের কোভিড-১৯ লাল তালিকাভুক্ত থাকা দেশগু’লো থেকে আসা ফুটবলাদের বাধ্যতামূলক দশ দিনের কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে।

এরফলে আন্তর্জাতিক বিরতি শেষে দুই-তিন ম্যাচে থাকবেন না আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের ফুটবলাররা। মূলত এ কারনেই ফুটবলারদের ছাড়তে অনীহা প্রকাশ করেছিল ক্লাবগু’লো।

ক্লাবগু’লোর ফুটবলার না ছাড়ার ঘোষণার পরই ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আ’দালতের দ্বারস্থ হয়। আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আ’দালত ফিফার পক্ষে রায় দেয়।

তারা জানায়, ক্লাবগু’লো কোনোভাবেই ফুটবলারদের দেশের হয়ে খেলা আট’কে রাখতে পারবে না।

আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আ’দালতের এ রায়ের পর ফুটবলারদের জাতীয় দলের মাঠের নামতে আর কোনো বাধা ছিল না।

অবশ্য এর আগে আর্জেন্টিনার হয়ে খেলার দৃঢ় প্রত্য্য ব্যক্ত করেছিলেন আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মা’র্টিনেজ।

আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আ’দালতের রায়ের পর আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান রোমেরো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জাতীয় দলে যোগ দিতে যাওয়ার ছবি পোস্ট করেন।

এতে দেখা যায় তিনি ছাড়াও আছে জিওভানি লে চেলসো, এমিলয়ানো মা’র্টিনেজ এবং এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া বিমানে করে ইংল্যান্ড ছাড়ছেন।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা এ চার ফুটবলারের প্রাথমিক গন্তব্য ছিল মা’দ্রিদ।

ইউরোপিয়ান লিগে খেলা সব আর্জেন্টাইন ফুটবলার মা’দ্রিদে আসবেন। সেখান থেকে চার্টার্ড ফ্লাইটে ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারা’কাসে দলের সাথে যোগ দিবেন।

সেখানেই আর্জেন্টিনার স্কোয়াডের সবাই একত্রিত হবেন বলে জানা গেছে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা এ চার আর্জেন্টাইন ফুটবলারের মধ্যে মা’র্টিনেজ

এবং বুয়েন্দিয়ায় ক্লাবের হয়ে সব ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন। রোমেরো একটি এবং লে চেলসো দুই ম্যাচে বদলি হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন।

চলতি বছরের ৩ সেপ্টেম্বর স্বাগতিক ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক সূচি শুরু করবে আর্জেন্টিনা। ভেনেজুয়েলার পরে ৬ সেপ্টেম্বর ব্রাজিল এবং ১০ সেপ্টেম্বর বলিভিয়ার মুখোমুখি হবে আলবিসেলেস্তারা।

error: চুরি করা নিষেধ । 😏